ওয়ানডের সুপার লিগের প্রথম ম্যাচ ৬ উইকেটে জিতে নিল ইংল্যান্ড

খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক

ম্যাচের উত্তেজনা প্রথম এক ঘন্টাতেই শেষ। প্রথম পাওয়ার প্লেতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসেছিল আয়ারল্যান্ড। নিজেদের পাওয়ার প্লেতেই ৩ উইকেট হারিয়ে উত্তেজনার রেণু ওড়ানোর চেষ্টা করেছিল স্বাগতিক ইংল্যান্ড। কিন্তু লক্ষ্য যখন মাত্র ১৭৩, তখন উত্তেজনা আর কতক্ষণই-বা থাকে। ১৩৩ বল হাতে রেখেই আয়ারল্যান্ডের দেওয়া লক্ষ্য ছুঁয়েছে ইংল্যান্ড। হাতে তখনো বাকি ৬ উইকেট।


১২ রানে জনি বেয়ারস্টো (২) ফিরে যাওয়ার পর খুব বেশিক্ষণ টেকেননি জেসন রয়ও। ২২ বলে ২৪ করা রয়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ব্যাট করা জেমস ভিন্সও বিদায় নিয়েছে ২০ পার হতেই। ২১ বলে ২৫ করা ভিন্স যখন ফিরছেন ইংল্যান্ডের রান তখন ৫৯। আয়ারল্যান্ডের আশা বাড়িয়ে ৭৮ রানে বিদায় নিয়েছেন টম বেন্টনও।


কিন্তু আইরিশদের হতাশ করার কাজটা এউইন মরগান বুঝে নিয়েছিলেন। আজই অনন্য এক কীর্তি গড়েছেন কার্টিস ক্যামফের। আয়ারল্যান্ডের হয়ে অভিষেকেই ফিফটি পেরিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে বয়সভিত্তিক ক্রিকেট খেলা এই ক্রিকেটারের আগে এ কীর্তি ছিল মরগানেরই। আয়ারল্যান্ড ফেলে পরে ইংল্যান্ডকে বেছে নিয়ে বিশ্বকাপ জেতা অধিনায়ক হওয়া মরগান আজ খেলেছেন সত্যিকারের অধিনায়কের মতো ইনিংস। অন্যপ্রান্তে স্যাম বিলিংসকে আক্রমণাত্মক খেলতে দেখে নিজে অ্যাংকরের ভূমিকা পালন করেছেন।


৫৪ বলে ৬৭ রান তোলা বিলিংস ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমিয়ে এনেছেন। ওদিকে ৪০ বলে ৩৬ রান নিয়ে মরগান নিশ্চিত করেছেন প্রতিপক্ষ যেন কোনোভাবেই ম্যাচে ফিরতে না পারে। এর আগে ৩০ রানে ৫ উইকেট নিয়ে ডেভিড উইলি সফরকারীদের ১৭২ রানে গুটিয়ে দিয়েছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *