মৌসুমী ব্যবসায়ীরা কুরবানির চামড়া লোকসানে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে

দেশজুড়ে প্রিয় দিনাজপুর

নাটোরের পর উত্তরবঙ্গের দ্বিতীয় বৃহত্তম চামড়ার বাজার দিনাজপুরের রামনগর চামড়ার বাজারে এবারও ধস নেমেছে।

মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা কুরবানির পশুর চামড়া লোকসানে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে। আড়তদাররা তাদের ইচ্ছামতো দাম নির্ধারণ করে দিচ্ছে। অর্ধ লাখ টাকার গরুর চামড়া বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ২৫০ টাকায়।

জেলা পর্যায়ে প্রতি বর্গফুট চামড়ার দাম ২৮ থেকে ৩২ টাকা সরকারিভাবে নির্ধারণ করা হলেও এই দামের থেকে অনেক কম দামে দিনাজপুরে চামড়া বিক্রি হয়েছে।

মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা বলছেন, তারা চামড়া বিক্রি করতে এসে কেনা দামের চেয়ে অর্ধেক দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে। লোকসানে বিক্রি না করলে চামড়া ফেলে দিতে হবে। তাই তারা বাধ্য হয়ে লোকসান মূল্যে চামড়া বিক্রি করছে।

এদিকে আড়তদাররা বলছেন, গত বছর তারা চামড়া ব্যবসায় চরম লোকসানের শিকার হয়েছেন। ট্যানারি মালিকরা চাহিদামত টাকা দিচ্ছে না। এছাড়া চামড়া কিনে বিক্রির নিশ্চয়তা নেই। সে কারণে তারা ঝুঁকি নিয়েই বুঝেশুনে চামড়া কিনতে হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *